চট্টগ্রাম

চট্টগ্রামে হামলা করে গৃহবধূকে ধর্ষণের চেষ্টা, বাঁচাতে গিয়ে ৭ নারী-পুরুষ জখম

চট্টগ্রামে হামলা করে গৃহবধূকে ধর্ষণের চেষ্টা, বাঁচাতে গিয়ে ৭ নারী-পুরুষ জখম

চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে জায়গা জমির বিরোধে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে। এ সময় রাশেদা বেগম (৩৫) নামে এক গৃহবধূকে উঠিয়ে নিয়ে সন্ত্রাসীরা ধর্ষণের চেষ্টা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এতে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে রাশেদার শরীরের বিভিন্নস্থানে দাগসহ মাথা রক্তাক্ত জখম হয়েছে। ওই গৃহবধূকে বাঁচাতে গিয়ে হামলার শিকার হয়েছেন অন্তত ৭ নারী-পুরুষ।

বুধবার (১৯ মে) বুধবার দুপুর ১২টায় উপজেলার কাথরিয়া ইউনিয়নের বাগমারা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। গৃহবধূ রাশেদা বেগমকে বাঁশখালী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

হামলায় গুরুতর আহতরা হলেন- গৃহবধূর স্বামী মো. মাহফুজ (৪০), তার মেয়ে শারমিন আক্তার (১৬), তাহেরা বেগম (২৮), মিজান (৩২), আবছার (২৮), রায়াদ (৪)। অন্যান্য আহতরা স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা নিয়েছেন। এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। দুপুর থেকে ঘটনাস্থলে পুলিশ অবস্থান করছে।

এ ঘটনায় মো. মাহফুজ বাদি হয়ে ৫ জন জ্ঞাত ও ১০-১২ অজ্ঞাত দেখিয়ে থানায় অভিযোগ দিয়েছেন। মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়ছেন মো. মাহফুজ।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, এলাকায় জায়গা জমির বিরোধকে কেন্দ্র করে ঈদের পরের দিন থেকে উত্তেজনা বিরাজ করছে। থানা পুলিশও বেশ কয়েকবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ওই ঘটনার রেশ ধরে বহু মামলার আসামি মো. আবু তালেব প্রকাশ আঙ্গাল, পেচু মিয়া প্রকাশ পেচু ডাকাত, মো. আবু তালেবের নেতৃত্বে আরও ১০-১৫ জন লোক মো. মাহফুজ ও তার স্ত্রী রাশেদা বেগমের ওপর হামলা চালায়। এক পর্যায়ে রাশেদা বেগমকে উঠিয়ে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এ সময় ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে তাকে জখম করা হয়। খবর পেয়ে প্রতিবেশিরা এগিয়ে গেলে তাদের ওপরও সন্ত্রাসীরা হামলা চালানো হয়। এতে প্রতিবেশিরা আহত হয়। পরে প্রতিবেশিরা মাথায় রক্তাক্ত এবং বিবস্ত্র অবস্থায় গৃহবধূ রাশেদাকে উদ্ধার করেন।

বাঁশখালী থানার এসআই লিটন চাকমা বলেন, জায়গা জমির বিরোধের জের ধরে মূলত হামলার ঘটনা ঘটেছে। অন্য কোন ঘটনা হয়েছে কিনা তদন্ত করা হচ্ছে। সঠিক তদন্তের পর আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *