দেশজুড়ে

দাগনভুঞা উপজেলা চেয়ারম্যান, ইউএনও, ওসিসহ ২৩ জনের নমুনা সংগ্রহ 

দাগনভুঞায় করোনাভাইরাস আক্রান্ত উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার সংস্পর্শে আসা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ওসিসহ ২৪ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তারা তাদের নমুনা সংগ্রহ করেছে বলে জানিয়েছেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. রুবাইয়াত বিন করিম।

ডা. রুবাইয়াত বিন করিম বলেন, করোনা আক্রান্ত উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার দাগনভূইয়া উপজেলা পরিষদ কার্যালয়ে কর্মরত ছিলেন। বিগত সময়ে তার সংস্পর্শে আসা কেউ করোনা আক্রান্ত কি না তা নিশ্চিত করতে ২৩ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এদের মধ্যে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান দিদারুল কবির রতন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রবিউল হোসেন, পৌর মেয়র ওমর ফারুক খান, থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আসলাম শিকদার ও পরিদর্শক (তদন্ত) পার্থ বড়ুয়া, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. রুবাইয়াত বিন করিম, প্রকল্প কর্মকর্তার কার্যালয়ের আরো চারজন কর্মকর্তা-কর্মচারী রয়েছেন। নমুনা সংগ্রহকৃত সকল ব্যক্তিদের বাড়িতে কোয়ারেন্টিনে থাকতে বলা হয়েছে।

স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্র জানায়, গত ২১ এপ্রিল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরে নমুনা চট্টগ্রামের বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেস (বিআইটিআইডি পাঠানো হয়। বুধবার রাতে সেখান থেকে প্রেরিত প্রতিবেদনে তার শরীরে করোনা শনাক্ত হয়। তিনি পৌর শহরের একটি বাসায় ব্যাচেলর থাকেন।

সিভিল সার্জন ডা. সাজ্জাদ হোসেন বলেন, আক্রান্ত ওই কর্মকর্তার সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিদের চিহ্নিত করার চেষ্টা চলছে। ইতোমধ্যে ফেনীতে চার জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এদের মধ্যে দাগনভূঞায় দুইজন, সোনাগাজীতে ও ছাগলনাইয়ায় একজন করে আক্রান্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে দুইজন ঢাকা ফেরত, একজন চট্টগ্রাম থেকে নিজ কর্মস্থলে আসা ও একজন নিজ এলাকায় ল্যাবে কাজ করতে যেয়ে আক্রান্ত হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *