অন্যান্য

মিশা-জায়েদের নামে মামলা দায়ের করব : নায়ক আলমগীর

মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি) ইলিয়াস কাঞ্চন-নিপুন পরিষদের পরিচিতি সভায় বক্তব্য দেওয়ার সময়, মিশা-জায়েদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি আইনে মামলা করবেন বলে জানালেন বিশিষ্ট অভিনেতা আলমগীর।

আলমগীর বলেন, মিশা-জায়েদ প্যানেলের সাংগঠনিক সম্পাদককে দেখলাম ফাইল তুলে দেখাচ্ছে আর বলছে, ‘দেখুন, এখানে নায়ক আলমগীর ভাইয়ের স্বাক্ষর আছে। তারা হয়তো ফটোকপির মতো কিছু একটা করেছে, ওই ফাইলটা আমি একটু দেখতে চাই। আমি এখনও জানি না তারা কী করেছে। আর আমি এটার জন্য ওদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি আইনে মামলা করব।’

আলমগীর আরও বলেন, ‘ওরা অনেক সময় মিথ্যা কথা বলছে, সবসময় প্রশাসনের ভয় দেখাচ্ছে আমাদের। বাজে কথাও বলছে, এবার বোধ হয় একটু ভুল করেছে। আমি এর অ্যাকশন নেব। দরকার হলে একা নেব।’ এ বিষয়ে আমি নায়ক উজ্জ্বল ভাইয়ের সঙ্গে কথা বলেছি।

আগামী ২৮ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ১৭তম নির্বাচন। এবারের নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে মিশা-জায়েদ প্যানেল ও কাঞ্চন-নিপুণ প্যানেল।

অভিযোগ উঠেছে, মিশা-জায়েদ কমিটি ১৮৪ জনের ভোটাধিকার কেড়ে নিয়েছে। তবে মিশা-জায়েদ দাবি করেন, তাদের একক সিদ্ধান্তে এটি হয়নি। সমিতির ২১ জন কেবিনেট মেম্বার ও উপদেষ্টা কমিটির সম্মতিতেই বাদ দেওয়া হয়েছে ১৮৪ জনকে।

ওই উপদেষ্টা কমিটিতে ছিলেন চিত্রনায়ক ফারুক, ইলিয়াস কাঞ্চন আলমগীর ও সোহেল রানা। আর কেবিনেট সদস্য ছিলেন নিপুণ ও রিয়াজ। জায়েদের দাবি, ভোটার তালিকা তিনি নিজে বা একা কাউকে বাদ দেননি। সবার সিদ্ধান্তেই এটি করা হয়েছে। বাদ দেওয়ার ওই পেপারটিতে সবাই স্বাক্ষর করেছে।

সেই পেপারটি গত ২৩ জানুয়ারি মিশা-জায়েদ প্যানেল পরিচিত সভায় সবার সামনে তুলে ধরেন জায়েদ খান।

Leave a Reply

Your email address will not be published.