অন্যান্য

হতাশায় আত্মহত্যা করলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী 

হতাশায় আত্মহত্যা করলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী 

গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী হতাশাগ্রস্ত হয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। আত্মহত্যাকারী শিক্ষার্থী পল্লবী মন্ডল ছিলেন অর্থনীতি বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী।

পুলিশ শুক্রবার (৪ ফেব্রুয়ারি ) সকালে খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলার শুকুরমারি গ্রামে নিজ বাড়ি থেকে অর্থনীতি বিভাগের চতুর্থ বর্ষের এই ছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে।

অর্থনীতি বিভাগের চেয়ারম্যান জুবাইদুর রহমান আত্মহত্যার বিষয়টি নিশ্চিত ক জানিয়েছেন, আমি বিষয়টি পল্লবীর সহপাঠীদের কাছ থেকে জেনেছি। এছাড়া ইতোপূর্বে পল্লবীর মা আমার সঙ্গে দেখা করতে এসেছিলেন এবং পল্লবীর হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়ার বিষয়েও জানিয়েছেন। আমি ওই সময়ে তাকে পরামর্শ দিয়েছি প্রয়োজনে পল্লবীকে বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়ে আসতে, কারণ বন্ধুদের সহচার্যে তার হতাশা দূর হতে পারে এবং একা থাকলে হতাশা আরও বেড়ে যাবে। এছাড়া একাডেমিক ক্ষেত্রেও সহযোগিতার আশ্বাস দেওয়া হয়েছে।

পল্লবীর সহপাঠীরা জানিয়েছেন, পল্লবী চাকরির পরীক্ষার বিশেষ করে বিসিএসের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। কিন্তু সে করোনার কারণে সৃষ্ট সেশনজটের জন্য হতাশাগ্রস্থ হয়ে পড়েন এবং এর জেরেই আত্মহত্যার পথ বেছে নেন।

অর্থনীতি বিভাগের চেয়ারম্যান জুবাইদুর রহমান পল্লবীর মৃত্যুর বিষয়ে গভীর শোক প্রকাশ করে আরোও বলেন, মৃত্যু স্বাভাবিক কিন্তু তার এই অস্বাভাবিক মৃত্যু কাম্য না।

Leave a Reply

Your email address will not be published.